1. admin@rangpurjournal.com : admin :
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:৩৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
রংপুর প্রেসক্লাব আয়োজিত মিডিয়া কাপের চ্যাম্পিয়ন টিসিএ – রংপুর জার্নাল স্টেপ আপ ফর টুমরো সংগঠনের উদ্যোগে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন পিজিয়ন ক্লাবের উদ্যোগে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন ফেন্সিডিলসহ ছাত্রলীগ নেতা আটক – রংপুর জার্নাল হাতীবান্ধায় হেফজ বিভাগের ছাত্রদের মধ্যে টেবিল বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত স্থলবন্দর শ্রমিক লীগের অস্থায়ী কার্যালয়ের উদ্বোধন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত – রংপুর জার্নাল ফাগুন – শফিউজ্জামান আতা রংপুরে চালু হলো সিটি বাস সার্ভিস পাবনা জেলা গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ১৮০ পিচ ইয়াবা সহ গ্রেফতার ২ রংপুরে ইউনিসেফ এবং সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে আন্তঃব্যক্তিক যোগাযোগ বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

সোশ্যাল মিডিয়ায় সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ নাজমুল হুদা নাঈম

  • আপডেট সময় : বুধবার, ১৯ জুলাই, ২০২৩
  • ১০৪ বার পঠিত

সোশ্যাল মিডিয়ায় সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ নাজমুল হুদা নাঈম

বিনোদন প্রতিনিধি,
রিফাত মোল্লা:

বাবার ফেসবুক একাউন্ট উদ্ধারের নেশায় সাইবার বিশেষজ্ঞ হয়ে উঠেন নাঈম।

পঞ্চম শ্রেণিতে পড়াবস্থায় নিজের জন্মদিনেই বাবার ফেসবুক একাউন্ট নষ্ট হয়ে যায়। তা রীতিমতো দুশ্চিন্তা আর মাথা ব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়ায় নাঈমের৷ বাবার একাউন্টে সংরক্ষণে ছিল হাজারো গুরুত্বপূর্ণ তথ্য। কিন্তু অনেক চেষ্টাতেই ব্যর্থ হন নাঈ। একাউন্ট উদ্ধার না হওয়াতে বাবার দুশ্চিন্তা মুখ তাকেও ভাবিয়ে তোলে। সেই থেকে সাইবার যুদ্ধে পা রাখা তার। জেদ চাপে আইডি রিকভারের নেশা। তখন সে ভাবলো, আজ আমার বাবার সাথে এমন হয়েছে কাল অন্য জনের সঙ্গে হতেও পারে। আর সে জন্যই তার ইচ্ছে জাগে সাইবার নিরাপত্তা নিয়ে কাজ করার। কিছু দিনের মধ্যেই উদ্ধার করতে সক্ষম হন বাবার একাউন্টটি।

‘সে ঘটনার পর থেকে ২০১৫ সালে সাইবার নিরাপত্তা নিয়ে কাজ শুরু করি। ইউটিউব থেকে তথ্য সংগ্রহ করতে থাকি। পরবর্তীতে ২০১৬ সালে ভারতের একটি সাইবার নিরাপত্তা টিমের সাথে কাজ করার সুযোগ পাই। সেখানে প্রায় ২০১৯ সাল পর্যন্ত কাজ করি। এরপর কিছুটা দক্ষ হলে ২০২০ সালে নিজেই একটি সাইবার নিরাপত্তা টিম গঠন করি।’ বলছিলেন তরুণ এ সাইবার হিরো।

কুড়িগ্রামের প্রত্যন্ত গ্রামে বেড়ে ওঠা নাজমুল হুদা নাইম বলছিলেন, আমাদের মূল লক্ষ্য ছিলো মানুষকে সোশ্যাল প্লাটফর্মে সহযোগিতা। পাশাপাশি সেখান থেকে যদি কিছু আয় হয়, তা গরীব পথচারী ও মসজিদ মাদ্রাসায় সহযোগিতা করা। ২০২০ সালের শেষের দিকে আমাদের আয় করা ৫০ হাজার টাকা দিয়ে বিভিন্ন মসজিদ ও মাদ্রাসায় সহযোগিতা করা হয়।

কুড়িগ্রামে জন্ম নেয়া এ তরুণ সাইবার বিশেষজ্ঞ ভূরঙ্গামারী সরকারী কলেজ থেকে এইচএসসি সম্পন্ন করে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির প্রস্ততি নিচ্ছেন।

নাঈমের সাথে কথা বলে জানা যায়, বাবার ফেসবুক একাউন্টটি নষ্ট হওয়াকে কেন্দ্র করে সোশ্যাল মিডিয়ার সাইবার নিরাপত্তা নিয়ে কাজ শুরু করেছিলাম। এখন তা দেশ ও দেশের বাহিরের বাঙালি প্রবাসীদের জন্য কাজ করে থাকি। তাদের সমস্যাগুলো সমাধান করে থাকি। পাশাপাশি বলতে চাই তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করা ভালো, তবে আমাদের সবসময় ভালো দিকগুলো ব্যবহার করতে হবে আর খারাপ দিকগুলো বর্জন করতে হবে। যাতে অন্যের উপকার করতে না পারলেও ক্ষতি হবে এমন কাজ থেকে বিরত থাকি।

নিজের ভবিষ্যত পরিকল্পনার কথা জানিয়ে নাঈম বললেন, অনলাইনে দেশ ও দেশের বাহিরের সকল মানুষের সোশ্যাল মিডিয়ার যেকোনো সমস্যা সমাধান করে দিতে। আর অফলাইনে গরীর ও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © 2022 Rangpur Journal
Theme Customized By Theme Park BD