1. admin@rangpurjournal.com : admin :
রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ০১:৫৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক পেলেন লালমনিরহাট জেলার পুলিশ সুপার রংপুর প্রেসক্লাব আয়োজিত মিডিয়া কাপের চ্যাম্পিয়ন টিসিএ – রংপুর জার্নাল স্টেপ আপ ফর টুমরো সংগঠনের উদ্যোগে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন পিজিয়ন ক্লাবের উদ্যোগে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন ফেন্সিডিলসহ ছাত্রলীগ নেতা আটক – রংপুর জার্নাল হাতীবান্ধায় হেফজ বিভাগের ছাত্রদের মধ্যে টেবিল বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত স্থলবন্দর শ্রমিক লীগের অস্থায়ী কার্যালয়ের উদ্বোধন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত – রংপুর জার্নাল ফাগুন – শফিউজ্জামান আতা রংপুরে চালু হলো সিটি বাস সার্ভিস পাবনা জেলা গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ১৮০ পিচ ইয়াবা সহ গ্রেফতার ২

(রমেক) হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে সাধারণ রোগীদের সাথে

  • আপডেট সময় : সোমবার, ১০ জুলাই, ২০২৩
  • ৪৪ বার পঠিত

(রমেক) হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে সাধারণ রোগীদের সাথে।

মো: সাকিব চৌধুরী,

রংপুর মহানগর প্রতিনিধি:

দেশের বিভিন্ন জেলার মতো রংপুরেও বাড়ছে ডেঙ্গুর আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। গত এক সপ্তাহে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময়ে ভর্তি হয়েছেন ১১ জন।

তবে ডেঙ্গু আক্রান্তরা সবাই ঢাকা ফেরত বলে জানিয়েছেন রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. মাহফুজুর রহমান।

সোমবার (১০ জুলাই) সরেজমিনে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন ওয়ার্ডে দেখা যায়, সাধারণ রোগীদের সঙ্গে গাদাগাদি করে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদেরও রাখা হয়েছে। ডেঙ্গু রোগীরা মশারি টানানো অবস্থায় থাকলেও পাশের বেডে অন্য রোগে আক্রান্ত আলতাফ মিয়া বলেন, ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে সাধারণ রোগীদের সাথে। এতে আতঙ্কে রয়েছি আমরা। আমাদেরও ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার শঙ্কায় আছি।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর স্বজনদের অভিযোগ, ডেঙ্গু রোগীদের জন্য আলাদা ইউনিট না খোলায় সাধারণ রোগীদের সঙ্গে গাদাগাদি করে রাখা হচ্ছে। এতে অন্য রোগীদের মাঝে আক্রান্ত হওয়ারও ঝুঁকি বাড়ছে। দ্রুত ডেঙ্গু রোগীদের জন্য আলাদা ওয়ার্ড চালুর দাবি জানান তারা।

চিকিৎসাধীন কুড়িগ্রাম জেলার ফরহাদ হোসেন জানান, তিনি ঢাকায় একটি স্কুলের শিক্ষকতা করেন। ঈদের ছুটিতে বাড়িতে এসে অসুস্থ হয়ে পড়লে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন। পরীক্ষায় ডেঙ্গু ধরা পড়েছে চিকিৎসকরা জানান।

ঢাকা থেকে ঈদের ছুটিতে আসা আরেক শিক্ষার্থী সোকিন জানান, তিনদিন ধরে প্রচণ্ড জ্বরের কারণে লালমনিরহাটে হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানে অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। এখানে সাতদিন ধরে মেডিসিন ওয়ার্ডে চিকিৎসা নিচ্ছেন

এ বিষয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসক ডা. ইউনুস আলী বলেন, পর্যাপ্ত জায়গা না থাকায় সাধারণ রোগীদের সঙ্গে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। আমাদের ইউনিট এবং বেডের সমস্যা রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের জন্য আলাদা জায়গা ব্যবস্থা না থাকায় সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে। তবে রোগী বাড়লে দ্রুত সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।

মেডিসিন ওয়ার্ডের সাধারণ রোগী আনোয়ার হোসেন বলেন, অবাক করার মতো ঘটনা, এত বড় হাসপাতালে কয়েকজন ডেঙ্গু রোগী রাখার জায়গা নেই। একসঙ্গে রাখলে অন্য কারও তো ডেঙ্গু হতে পারে এ বিষয়টি জানার পরও আলাদা ইউনিট খুলছে না। ডেঙ্গু রোগীদের সঙ্গে সাধারণ রোগীরা থাকায়, কেউ ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হলে এর দায় কে নেবে।

এ ব্যাপারে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. মাহফুজুর রহমান জানান, ডেঙ্গু রোগীদের বেডগুলো মশারি টানানো যাতে অন্য কেউ আক্রান্ত না হয়। তারপরও ডেঙ্গু রোগীদের জন্য আলাদা ওয়ার্ড হলে ভালো হতো। বিকল্প ব্যবস্থার কথা মাথায় নিয়ে কাজ করা হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, চিকিৎসাধীন এবং চেম্বারে যারা চিকিৎসা নিচ্ছেন সবাই ঢাকা থেকে আসা। রংপুরে ডেঙ্গুর প্রকোপ নেই।

এর মধ্যে গত মঙ্গলবার ডেঙ্গুতে মারা যান রংপুর সদর হাসপাতাল কলোনির বাসিন্দা হরিজন মানু লালের ছেলে বুলেট লাল (৩৮)। তিনি ঢাকা হাইকোর্ট এলাকায় পরিছন্নকর্মী হিসেবে কাজ করতেন। সেখানে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে বাড়ি চলে আসেন এবং অবস্থার অবনতি হলে তাকে সোমবার রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. ইউনুছ আলী জানান, হাসপাতালে ১১ জন রোগী ভর্তি আছেন। তারা সবাই ঢাকায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে রংপুরে এসে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তবে দ্রুত ডেঙ্গু রোগীদের জন্য আলাদা ওয়ার্ডের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে।

রংপুর সিভিল সার্জন ডা. জাহাঙ্গীর কবির জানান, ডেঙ্গু বিষয়ে ঈদের আগে থেকে রংপুর সিটি করপোরেশন, রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে সচেতনতা করা হয়েছে।

রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা জানান, নগরীতে বর্তমানে এডিস মশা কিংবা ডেঙ্গু নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। রংপুরে ডেঙ্গু নাই বললেই চলে। ঢাকায় আক্রান্তরাই রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এসে ভর্তি হয়েছে। তবুও রংপুর সিটি করপোরেশন ডেঙ্গু রোধে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। মশক নিধন ও পরিচ্ছন্নতা কাজে প্রায় দুই শতাধিক কর্মী সার্বক্ষণিক নিয়োজিত রয়েছে। আমরা এ বিষয়ে সজাগ রয়েছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © 2022 Rangpur Journal
Theme Customized By Theme Park BD