1. admin@rangpurjournal.com : admin :
রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৪৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
হাতীবান্ধায় গৃহবধূকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে গ্রাম পুলিশের বিরুদ্ধে থানায় মামলা  হাতীবান্ধায় গরু ছিনতাই মামলার আসামী স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা গ্রেফতার রংপুরে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিএনপি’র মানববন্ধন হাতীবান্ধায় দায়সারা প্রাণীসম্পদ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত – রংপুর জার্নাল ভুয়া পোষ্য কোঠায় প্রধান শিক্ষকের চাকুরী অতঃপর শিক্ষা অধিদপ্তরে অভিযোগ হাতীবান্ধায় চেয়ারম্যান পদে স্বামী-স্ত্রীর মনোনয়নপত্র জমা লালমনিরহাট জেলাবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন- গোলাম মোস্তফা স্বপন পঞ্চগ্রাম ইউনিয়নবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন – চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক বসুনিয়া লালমনিরহাট সদর উপজেলাবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন – এরশাদুল করিম রাজু লালমনিরহাট সদর উপজেলাবাসীকে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন- উপজেলা চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান সুজন

ধরলার বুক চিরে সবুজের সমারোহ

  • আপডেট সময় : সোমবার, ৯ জানুয়ারি, ২০২৩
  • ১২১ বার পঠিত

ধরলার বুক চিরে সবুজের সমারোহ

 

মিনহাজ পারভেজ,

পাটগ্রাম লালমনিরহাট প্রতিনিধি।

ধরলা নদীতে জেগে উঠা ফুটন্ত বালুচর এখন কৃষকের জন্য আশীর্বাদ হয়ে এসেছে
ধরলা নদীর বিস্তৃর্ণ তীরে ধান, ভুট্টা, সরিষা সহ সবজির বাম্পার ফলন দেখা গেছে। চলতি মৌসুমে ধরলা নদীর তীরে জেগে ওঠা চরে বিভিন্ন ফসলের চাষ করেছেন স্থানীয় কৃষকরা। এখানকার চরের বালিতে জমা পলি মাটি ও আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় চাষের উপযোগী বিভিন্ন ফসল হয়েছে বেশ ভালো। কোন প্রকার প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে এই মৌসুমে ফসলের চাষ করে লাভবান হবেন এখানকার স্থানীয় চাষিরা।

জানা যায়, লালমনিরহাট জেলার পাটগ্রাম উপজেলার মধ্য দিয়ে বয়ে যাওয়া ধরলা নদীতে বিভিন্ন স্থানে জেগে উঠেছে চর। এই মৌসুমে নদীর তীরে জেগে ওঠা এসব চরে ফসলের চাষ করেছেন এই অঞ্চলের স্থানীয় চাষিরা। আবহাওয়া চাষের অনুকূলে থাকায় এ বছর ফসলের চাষে বেশ সাফল্যের আশা স্থানীয় কৃষকদের। এই সাফল্য বজায় থাকলে আগামী বছর আরও বেশি জমিতে বিভিন্ন ফসলের চাষ করবেন তারা।

ধরলার তীরে যেদিকে দুচোখ যায় শুধু সবুজ ক্ষেত চোখে পড়ে। ফসলের চাষে তুলনামূলকভাবে খরচ কম লাগায় ও পরিশ্রম কম লাগায় দিন দিন ধরলার তীরে চাষিরা সবজি সহ বিভিন্ন ফসলের চাষে ঝুঁকছেন।

পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী ইউনিয়নের স্থানীয় চাষি জাফর ইকবাল জানান, আগে এখানকার বালুচরে তেমন কোন ফসলের চাষ করা হতো না। এই মৌসুমে চরে পলিমাটি পড়ায় ও এখানকার আবহাওয়া ধান, ভুট্টা, সরিষা,সবজি সহ বিভিন্ন ফসল চাষের অনুকূলে থাকায় দিন দিন এখানে চাষাবাদ বেড়েই চলেছে। তাছাড়াও ধরলা নদীর তীরে জেগে ওঠা বালুচরে চাষ করলে তেমন কোন খরচ হয় না এবং তুলনামূলকভাবে পরিশ্রম অনেক কম লাগে। বালুচরে চাষ করা সবজিতে তেমন কোন সার কিংবা রোগের জন্য কীটনাশকের ব্যবহার করতে হয় না। এজন্য সার কিংবা কীটনাশকের জন্য আলাদাভাবে কোন খরচ হয় না।

এ প্রসঙ্গে পাটগ্রাম উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল গাফফার বলেন, আগের বছরগুলোর তুলনায় এই বছর বালুচরের জমিগুলোতে ব্যাপকহারে ধান,ভুট্টা,সরিষা সহ বিভিন্ন সবজির চাষ করেছেন কৃষকরা। বালুচরের পলিমাটিতে ফলন ভালো হওয়ায় লাভবান হওয়ার আশা করছেন চাষিরা। আমরা ফসল চাষের ব্যাপারে কৃষকদের সকল ধরণের সহযোগিতা করে যাচ্ছি।

পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নাজমুল হক সুমন জানান, উপজেলার ধরলা নদীর তীরে জেগে ওঠা বালুচরে কৃষকেরা বিভিন্ন ফসলের চাষাবাদ করেছেন ফসল চাষের ব্যাপারে কৃষকদের সকল প্রকার সহযোগিতা নিশ্চিত করতে উপজেলা কৃষি অধিদপ্তরকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এবং ধরলা নদীর তীরে জেগে ওঠা বালুচরের অনাবাদি জমিতে চাষ উপযোগী করে বিভিন্ন ফসল উৎপাদন করায় কৃষকদের ধন্যবাদ জানিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, বালুচরে জেগে ওঠা জমিতে উৎপাদিত ফসল দেশের খাদ্য উৎপাদনে নতুন মাত্রা যোগ করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © 2022 Rangpur Journal
Theme Customized By Theme Park BD